Tuesday, October 27, 2020
নারী

হোমিও প্রতিবিধান ব্রেস্ট টিউমার চিকিৎসায় সচেতন-রাজশাহী সংবাদ

541views

মহিলারা ধীরে ধীরে সচেতন হয়ে উঠেছে ব্রেস্ট টিউমার হোমিও চিকিৎসায়

ডেস্ক নিউজ: বর্তমানে ব্রেস্ট টিউমার সম্পর্কে মহিলারা ধীরে ধীরে সচেতন হয়ে উঠেছে। এর জন্য দরকার গণসচেতনতা। টিউমার হলো দেহ কোষের অস্বাভাবিক বৃদ্ধি। এটা কখনো Benine বা অক্ষতিকর আবার কখনো Malignant বা ক্যান্সার রূপে দেখা দেয়। প্রতিনিয়ত আমাদের দেহে পুরনো কোষ ধ্বংস হয়ে কোষ বিভাজনের মাধ্যমে নতুন কোষ তৈরি হয়।

কোনো কারণে কোষের বিভাজন ও ধ্বংসের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ বাধাগ্রস্ত হলে টিউমার তৈরি হয়।

ব্রেষ্ট টিউমার এর কারণ: হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসায় ব্রেষ্ট টিউমার বা ক্যান্সার এর কারণ হিসেবে মায়াজমকেই চিহ্নিত করা হয়েছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে সাইকোসিস ও টিউবারকুলোসিস মায়াজম ও সক্রিয় থাকতে পারে। এ ছাড়া পারিবারিক বা বংশগত ইতিহাসে কারও ক্যান্সার হয়ে থাকলে ওই মায়াজমটি ব্রেষ্ট ক্যান্সার-এর ঝুঁকিটা আরও বাড়িয়ে দেয়।

ডিজিটাল বিজ্ঞান এখনো স্তনের টিউমার বা ক্যান্সার জাতীয় টিউমারের কারণ খুঁজে বের করতে পারেনি। তবে কিছু নির্দিষ্ট কারণকে চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা ব্রেষ্ট টিউমার-এর কারণ বলে চিহ্নিত করেছেন যেমন:

হোমিও প্রতিবিধান ব্রেস্ট টিউমার চিকিৎসায় সচেতন,ব্রেস্ট টিউমার,হোমিও চিকিৎসা,ব্রেস্ট ক্যান্সার,জরায়ু টিউমার

  • কোনো আঘাতজনিত কারণে স্তনের টিস্যু বা কোষ নষ্ট হয়ে গেলে।
  • অনেক বেশি বয়সে প্রথমে গর্ভধারণ।
  • বাচ্চাকে যদি স্তনের দুধ পান করানো না হয়।
  • যেসব পরিবারে ক্যান্সার বা ব্রেস্ট ক্যান্সারের ইতিহাস পাওয়া যায়।
  • ইস্টোজেন ও প্রজেস্টোরেন হরমোনের আনুপাতিক বৈষম্য তেজষ্ক্রিয় আয়নের প্রভাবের কারণে।
  • মাসিক হচ্ছে একটি বড় কারণ। কম বয়সে মাসিক হওয়া এবং বেশি বয়সে বন্ধ হয়।
  • এছাড়া রেডিয়েশনের প্রভাবেও টিউমার ও ক্যান্সার হতে পারে।

হোমিও প্রতিবিধান: রোগ নয় রোগীকে চিকিৎসা করা হয়। হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসায় আধুনিক ও অভিজ্ঞ চিকিৎসকের মাধ্যমে কোনো ধরনের অস্ত্রোপচার ও কষ্টকর থেরাপি ছাড়াই সুস্থতা লাভ করা সম্ভব এবং রোগীর লক্ষণগুলো সংগ্রহ করে সঠিক ওষুধ নির্বাচন করতে পারলে তাহলে ব্রেস্ট টিউমার ও জরায়ু টিউমার চিকিৎসা হোমিওতে চিকিৎসা দেয়া আল্লাহর রহমতে সম্ভব।

Leave a Response