Saturday, October 24, 2020
টপ নিউজরাজনীতি

সিটি নির্বাচনে বীরের বেশে জিততে হবে : মিনু

140views

সিটি নির্বাচনে বীরের বেশে জিততে হবে : মিনু

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তি ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবীতে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে বিজয়ী করতে করণীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। সোমবার বিকেলে রাজশাহী নগরীর সাহেব বাজারস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে এই বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সদ্য বিদায়ী মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের অন্যতম উপদেষ্টা, মিজানুর রহমান মিনু। সম্মানিত অতিথি ছিলেন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট কামরুল মনির। প্রধান বক্তা ছিলেন সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এম রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য এম.কে আনোয়ার, সাবেক সংসদ সদস্য ও নির্বাহী কমিটির সদস্য সামসুল আলম প্রামানিক চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সদস্য আবু সাইদ চাঁদ, বাগমারা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল গফুর, জেলা বিএনপি’র সভাপতি তোফাজ্জাল হোসেন তপু, জেলা বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মহসিন আলী, বগুড়া জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-ভাপতি আব্দুল্লাহ আল মান্নাত, জয়পুরহাট জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নাফিজুর রহমান পলাশ, নওগাঁ জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম , নাটোর জেলা বিএনপি’রে সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক, বগুড়া জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদিন চান, চাপাই নবাবগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি মবিনুল রহমান মিয়া, নওহাটা পৌরসভার মেয়র শেখ মকবুল হোসেন, তানোর পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান, গোমস্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান বাইরুল ইসলাম, নওগাঁ পৌর মেয়র ও জেলা বিএনপি’র সভাপতি নাজমুল হক সনি, নওগাঁর সাবেক সংসদ সদস্য সালেক চৌধুরী, মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল হুদা, ।

বিএনপি নেতা মিজানুর রহামান মিনু প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, আগামী সিটি নির্বাচনে বিরের পেশে জিতবে হবে। খালেদার মুক্তি ও দেশের জনগণকে এই হয়নারুপি হাসিনার হাত হতে রক্ষা করতে ধানের শীষের কোন বিকল্প নেই। রাজশাহীর সিটি নির্চাচনে বিজয়ের মাধ্যমে খুনি হাসিনাকে বাংলাদেশ থেকে চিরতরে বিদায় করার ঘন্টা বাজানো হবে। দেশকে রক্ষ করতে বেগম জিয়ার নেতৃত্বে সংসদ গঠন করতে হবে। সেইসাথে আগামী সিটি নির্চাচনে সকল বাধা অতিক্রম করে দলীয় প্রার্থী বুলবুলকে বিজয়ী করতে হবে। বিএনপি এখন একতাবদ্ধ ও সুংগঠিত একটি দল। রাজশাহী ও বিভাগের সকল নেতৃবৃন্দ একণ একতাবদ্ধ। একতাবদ্ধ শক্তিকে কাজে লাগিয়ে বিএনপি’র প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। এরজন্য প্রতিটি নেতাকর্মীকে মাঠে থাকার আহবান জানান মিনু। খুলনা এবং গাজীপুরের মত নির্বাচন কোনভাবেই হতে দেওয়া হবেনা বলে উদ্বোধনী বক্তব্যে মিনু বলেন।

দুলু বলেন, এই অনির্বাচিত সরকারের আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন একের পর এক সরকারের পক্ষ নিয়ে নির্বাচনে আওযামী লীগ প্রার্থীদের বিজয়ী হতে সহযোগিতা করছেন। তিনি আরো বলেন, রাজশাহীর মাটি বিএনপি’র ঘাটি। এই মাটিতে দুর্বৃত্তদের কোন ঠাই দেওয়া হবেনা। রাজশাহীতে আর কোনভাবেই আওয়ামী লীগকে বিজয়ী হতে দেওয়া হবেনা। হাসিনাকে বিশ^ দুর্নীতিবাজ উল্লেখ কে তিনি বলেন, হাজার হাজার কোটি টাকা হাসিনা দুর্ণীতি কওে দেশের বাহিওে ছেলে ও বোনের নিকট পাচার করছে। অথচ একটি টাকাও দুর্নীতি না কওে বেগম জিয়াকে কারাগাওে রাখা হয়েছে। সমগ্র দেশকে কারাগারে পরিণত করা হয়েছে। মানুষ এই কারাগার থেকে মুক্তি চায়।
বিভিন্ন জেলা থেকে আগত অন্যান্য নেতারাও সিটি নির্বাচনের একতাবদ্ধ ভাবে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন। সেইসাথে আওয়ামী লীগের সকল প্রকার ষড়যন্ত্র রুখে দেওয়ার ঘোষনা দিয়ে নির্বাচন শেষ এবং ভোট গননা না হওয়া পর্যন্ত মাঠে থেকে পাহাড়া দেওয়ার ঘোষনা দেন। সভাপতির বক্তব্যে বুলবুল সকল জেলার নেতাদের এই বর্ধিত সভায় উপস্থিত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান। সেইসাথে আগামী সিটি নির্বাচনে একতাবদ্ধভাবে সকলকে নির্বাচনের কাজ করার অনুরোধ জানান।

Leave a Response