Tuesday, November 24, 2020
রাজশাহী

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাড়ছে মশার উপদ্রব

415views

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাড়ছে মশার উপদ্রব

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাড়ছে মশার উপদ্রবআকরাম হোসাইন, রাবি: সন্ধ্যা নামলেই শুরু হয় মশার গুনগুন শব্দ। কখনো রুমের জানালায়, কখনো বা বিছানায়। হঠাৎ করেই কামড় দেয়। কামড়ে ফুলে যায় ওই অংশ। মশারি টাঙিয়েও অনেক সময় কামড় থেকে রক্ষা পাওয়া যায় না। এমনকি দিনের বেলাও থেমে থাকে না তাদের কার্যক্রম। মশার এমন উপদ্রপ হয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বিভিন্ন হলে হলে। শুধু হল নয় ক্যাম্পাসের এমন কোন জায়গা নেই যেখানে মশার উপদ্রব নেই।
শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ক্যাম্পাস ও হলের আশে পাশে ঝোঁপঝাড়, জঙ্গল ও ড্রেনগুলো নিয়মিত পরিস্কার না করায় মশার উপদ্রব বেড়েই চলছে। যার ফলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এদিকে মশার উপদ্রবের ফলে মশাবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। দ্রুত মশা নিধন না হলে মশাবাহিত রোগ প্রকট আকার ধারণ করতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসকরা।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,বিশ্ববিদ্যালয় কোয়ার্টার ও আবাসিক হলগুলোর আশে পাশে ঝোপ-জঙ্গল ও ড্রেনগুলো নিয়মিত পরিষ্কার না করায় ক্যাম্পাসে মশার উপদ্রব বৃদ্ধি হয়েছে। বিকেল হতেই না হতে শুরু মশার পদচারণা। মশার কামড়ে ক্যাম্পাসের পুরাতন ফোকলোর চত্বর, ইবলিশ চত্বর, শহীদ মিনার চত্বর, পরিবহন মার্কেট, টিএসসিসি, সিনেট ভবন চত্বরসহ পুরো ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের চলাফেরা দায় হয়ে গেছে। শুধু তাই নয় বিকেলে ক্লাস ও আবাসিক হলে শিক্ষার্থীদের রাত্রি যাপন করা কঠিন হয়ে পড়েছে।
রাবির নবাব আব্দুল লতিফ হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মোশাররফ হোসেন শাহিন জানান, বিকেল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই মশার উপদ্রব বেড়ে যায়। এর জ্বালায় চেয়ার টেবিলে বসে পড়তে পারি না এবং বিছানায় ঘুমাতে পারি না। তাই দ্রুত মশা নিধনের ব্যপারে প্রশাসনের উদ্যোগ গ্রহণের দাবি জানান তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় তাপসী রাবেয়া হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ইফফাত তাসনীম জানান, হটাৎ করে মশার উপদ্রব বেড়ে যাওয়ায় হলে পড়ালেখা করা সম্ভব হচ্ছে না। মশার উপদ্রব থেকে বাঁচতে মশাড়ির ভিতরে প্রবেশ করে পড়াশুনা করতে হয়। এতে পড়ার জন্য যথোপযুক্ত পরিবেশ পাওয়া যাচ্ছে না।
বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রের উপ-প্রধান চিকিৎসক ডা: মাসিহউল আলম হোসেন জানান, সম্প্রতি ক্যাম্পাসে মশার উপদ্রব বেড়ে গেছে। যার ফলে ম্যালেরিয়া ও ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। দ্রুত মশা নিধন না করা হলে এই রোগ গুলি শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রকট আকার ধারণ করতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. লায়লা আরজুমান বানু বলেন, ক্যাম্পাসের মশা নিধনের বিষয়ে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের সঙ্গে কথা হয়েছে। অতিদ্রুতই পদক্ষেপ নেবেন। পাশাপাশি হল প্রাধ্যক্ষদের হলের আশে পাশে জঙ্গল পরিষ্কারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

Leave a Response