Monday, October 26, 2020
টপ নিউজসারাদেশ

রাজশাহী নগর ছাত্রদলের ৯ ইউনিট কমিটি স্থগিত

226views

রাজশাহী নগর ছাত্রদলের ৯ ইউনিট কমিটি স্থগিত

Bnp logoনিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী নগর ছাত্রদলের নতুন নয়টি ইউনিট কমিটি স্থগিত করা হয়েছে। ঘোষণার দুইদিন পর ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক সোমবার বিকেলে নগর ছাত্রদলের এক বিজ্ঞপ্তিতে নয়টি নতুন কমিটি স্থগিত করার কথা জানানো হয়। মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবির স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞিপ্তিতে বলা হয়, নগর ছাত্রদলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত শনিবার নগর ছাত্রদলের অধিনস্থ তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ছয়টি থানা ইউনিট কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছিল। কিন্তু ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ছয়টি থানা ইউনিট কমিটি সাময়িকভাবে স্থগিত করা হলো।

গত শনিবার রাতে নগর ছাত্রদলের বোয়ালিয়া, রাজপাড়া, মতিহার, শাহ মখদুম, কাশিয়াডাঙ্গা, চন্দ্রিমা থানা এবং রাজশাহী সিটি কলেজ, রাজশাহী কলেজ ও নিউ গভ: ডিগ্রি কলেজ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর আগে সোমবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর বিএনপি কার্যালয়ে ভাংচুর চালায় পদবঞ্চিত ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা নতুন কমিটির কয়েকজন নেতৃবৃন্দকে মারপিট করে এবং চেয়ার টেবিল ও জানালার কাচ ভাংচুর করে। এতে চারজন আহত হন। তার আগে রোববার দুপুরে বিএনপির ওই কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেয় পদবঞ্চিতরা। বিকেলে নতুন কমিটির সদস্যরা গিয়ে তালা ভেঙ্গে কার্যালয়ে প্রবেশ করে পরিচিতি সভা করে। এর আগের দিন শনিবার রাতে মহানগরের নয়টি ইউনিট কমিটি ঘোষণা করে নগর ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। এর মধ্যে ছয়টি থানা ও তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কমিটি। এ নিয়ে রোববার থেকে নতুন কমিটি ও পদবঞ্চিতদের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল।

সিটি কলেজ ছাত্রদলের নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক লিমন বলেন, ‘আমরা দলীয় কার্যালয়ে পরিচিতি সভা করার জন্য বেলা ১১টা থেকে অবস্থান করছিলাম। এ সময় ছাত্রদলের কিছু নেতাকর্মী এসে আমাদের উপর হামলা চালায়। এসময় তারা দলীয় কার্যালয়ের চেয়ার-টেবিল ও জানালা ভাংচুর করে। বাধা দিতে গিলে রাজপাড়া থানা ছাত্রদলের নতুন সাধারণ সম্পাদক রাতুল, চন্দ্রিমা থানা ছাত্রদলের নতুন সভাপতি হাফিজুর রহমান এবং শাহমখদুম থানা ছাত্রদলের নতুন সাধারণ সম্পাদক আবুল বাসারকে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় তাদের হামলায় আরো কয়েকজন আহত হয়। তাদের প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। বোয়ালিয়া থানার ওসি আমান উল্লাহ বলেন, ‘নতুন কমিটি নিয়ে অভ্যন্তরীণ দ্বদ্বের জের ধরে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে এ হামলা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছার আগেই হামলাকারিরা পালিয়ে যায়। এ নিয়ে থানায় কোন অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ করা হলে দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

Leave a Response