Tuesday, October 20, 2020
রাজনীতি

রাজশাহীর উন্নয়ন লিটনকে দিয়েই সম্ভব

253views

রাজশাহীর উন্নয়ন লিটনকে দিয়েই সম্ভব

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এসএম কামাল হোসেন বলেছেন, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতিবাজ ও চাঁদাবাজি প্রতিবাদ এবং রাজশাহীর উন্নয়নে ব্যর্থ বিএনপির প্রার্থীর বিরুদ্ধে এবার রাজশাহীর মানুষ নৌকায় ভোট দেবে। কারণ রাজশাহীর উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ অঞ্চলের গণমানুষের নেতা খায়রুজ্জামান লিটনকে দিয়েই সম্ভব। যা রাজশাহীর মানুষ বুঝে গেছে। বুধবার দুপুরে রাজশাহী জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের মতবিনিময় সভায় এ সব কথা বলেন কামাল হোসেন। রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে জেলা সেচ্ছাসেবক লীগ এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি রোকনুজ্জামান রিন্টু। সভা পরিচালনা করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান রানা।

মতবিনিময় সভায় কামাল হোসেন বলেন, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ ও আগুন সন্ত্রাসের প্রতীক ধানের শীর্ষ। তাই মানুষ ধানের শীর্ষ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। তারা উন্নয়নের প্রতীক নৌকায় ভোট দিচ্ছে। যার প্রমান খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন। রাজশাহীতেও নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে। কামাল হোসেন আরো বলেন, সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেচ্ছাসেবক লীগকে গুরুত্বপুর্ন ভূমিকা পালন করতে হবে। নৌকায় ভোট দেওয়ার কারণেই চারিদিকে উন্নয়নের জোয়ার বইছে। বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে মর্যাদাশীল দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। এ বার্তা সেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীদের ভোটারদের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। ভোটাদের জানাতে হবে, নৌকা উন্নয়নের প্রতীক, শান্তির প্রতীক, বিশ্বে বাংলাদেশের মাথা উচু করে দাঁড়ানোর প্রতীক।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু, সাংগঠনিক সম্পাদক এহসানুল হক মাসুদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক খায়রুল হাসান জুয়েল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লিটন। পরে এসএম কামাল হোসেন মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে রাজশাহীর সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ভোট ডাকাতি, ভোট চুরি, ভোট কারচুপির অভ্যাস রয়েছে বিএনপি-জামায়াতের। অতিতে দেশের মানুষ তা দেখেছে। আর আওয়ামী লীগ গণতান্ত্রিক দল। আওয়ামী লীগ শন্তিপুর্ন নির্বাচন করে তা দেশের মানুষ দেখেছে। আওয়ামী লীগই পারে সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ন নিরোপেক্ষ নির্বাচন করতে। এ সময় নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. লায়েব উদ্দিন লাভলু, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক খায়রুল হাসান জুয়েল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লিটন উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Response