Saturday, October 24, 2020
টপ নিউজরাজশাহী

রাজশাহীতে এক সপ্তাহে ২৬শ’মামলা, সাড়ে ৪শ’যানবাহন আটক

178views

রাজশাহীতে এক সপ্তাহে ২৬শ’মামলা, সাড়ে ৪শ’যানবাহন আটক

rajshahiহাবিব আহমেদ: দীর্ঘদিন থেকে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন চলে এলেও তেমন কোনো সুলফ পায়নি সাধারণ মানুষ। একের পর এক অবৈধভাবে রাস্তায় চলাচল করা যানবাহনে সড়কে জীবন দিতে হয়েছে হাজার হাজার মানুষকে। আগে প্রশাসনের মধ্যেও নিরাপদ সড়কের ব্যাপারে তেমন গুরুত্ব ছিল না বললেই চলে। কিন্তু সম্প্রতি রাজধানীতে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু নাড়া দেয় সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে প্রশাসনের মনকে। বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নিয়ে মাঠে নামে আন্দোলনে। আন্দোলনে সব বিষয়ের সমাধান না হলেও বিবেক জাগ্রত হয় তা প্রমাণ করে দিয়েছে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে একাত্মতা ঘোষণা করে নিরাপদ সড়ক ও ট্রাফিক আইন বাস্তবায়ন ও প্রয়োগে সজাগ হয়ে উঠেছে আইনশংখলা বাহিনী।

একই সাথে রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মধ্যেও বিষয়টি লক্ষণীয় হয়ে উঠেছে। অভিজ্ঞদের মতে একটি সড়ক দুর্ঘটনা একটি পরিবারের কান্নাই নয়, একটি সড়ক দুর্ঘটনা একটি পরিবার পথে বসে যায়। সড়ক দুর্ঘটনায় কেউ মারা যায় আবার কেউ হাত পা ভেঙ্গে পুঙ্গু হয়ে যায়। পঙ্গু ব্যক্তিটি সারাজীবন পরিবারের বোঝা হয়ে বেঁচে থাকেন। বিষয়টির দিকে নজর রেখে আইনও পাশ হতে যাচ্ছে। যা দেশবাসীর জন্য অনেক বড় পাওয়া। অনেক দেরিতে হলেও নিরাপদ সড়কের জন্য সরকার আইন পাশ করছে যা মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টি কিছুটা হলেও বাস্তবায়ন হবে।

এদিকে সার দেশের মত রাজশাহীতেও গত এক সপ্তাহ থেকে পালন হলো ট্রাফিক সপ্তাহ। ট্রাফিক সপ্তাহ পালন উপলক্ষে রাজশাহীর ট্রাফিক বিভাগ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের মাঝে অনেকটাই সচেতনার মনোভাব লক্ষ করা গেছে। ট্রাফিক বিভাগ থেকে সভা সেমিনার, সচেতনামুলক লিফলেট বিতরণ, নিরাপদক সড়কের জন্য সাইকেল র‌্যালী করতে দেখা যায়। মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। শুরু নগরীতেই নয় জেলা ট্রাফিক বিভাগ থেকেও নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে ফিটনেস ও বৈধ কাগজপত্র বিহীন চলাচল করা যানবাহন। তবে এই অভিযানে সব চেয়ে বেশি মামলা ও আটক হয়েছে মোটরসাইকেল ও সিএনজি। এক সময়ের ভেঙ্গে পড়া ট্রাফিক ব্যবস্থা ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে বলেও মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। গত এক সপ্তাহে রাজশাহীতে ২৬শ’মামলা, সাড়ে ৪শ’যানবাহন আটক, তিনলাখ টাকা জরিমানা আদায় হয়েছে। তবে, এখনো অনেক ফিটনেস বিহীন যানবাহন রাস্তায় চলাচল করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ইফতেখায়ের আলম জানান, ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে গত এক সপ্তাহ থেকে রাজশাহীর ট্রাফিক বিভাগ থেকে নানা কর্মসূচি পালন করা হয়। মোড়ে মোড়ে চেকপোষ্ট, র‌্যালী, সচেতনাতা মুলক লিফলেট বিতরণ ও সভা হয়েছে। তিনি জানান, গত এক সপ্তাহে যানবাহনের কাগজপত্র না থাকার অভিযাগে ১১৪টি গাড়ি আটক করা হয়েছে। এসব যানবাহনের মধ্যে রয়েছে মোটরসাইকেল ও সিএনজি। এছাড়াও গত এক সপ্তাহে বৈধ কাগজপত্র না থাকার কারণে ১হাজার ৯শ’৪২টি মামলা দেয়া হয়েছে। যা নগর ট্রাফিক বিভাগের ইতিমাসে নজিরবিহীন। এছাড়াও মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ৮০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বিভিন্ন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জরিমানা করেন। প্রতিদিন চলছে মোবাইল কোর্ট ও ট্রাফিক বিভাগের চেকপোস্ট। তিনি জানান, ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে ট্রাফিক বিভাগের এমন উদ্যোগের কারণে মানুষ সচেতন হচ্ছেন। যারা বছরের পর বছর গাড়ি কাগজপত্র ছাড়াই রাস্তায় চলেছে তারা বিআরটিএ থেকে কাগজপত্র করতে শুরু করেছে। এমনকি বেপরোয়া গাড়ি চলাচলও অনেকটাই কমে এসেছে। তিনি আরো জানান, ট্রাফিক সপ্তাহ আরো তিনদিন বাড়ানো হয়েছে। এই তিনদিন রাজশাহীর ট্রাফিক বিভাগ থেকে বেশ কিছু কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী তিনদিন এসব কর্মসূচি পালন করা হবে। এদিকে, ট্রাফিক বিভাগ শুধু মোটরসাইকেল আটক বা জরিমানা বা মামলায় করছেনা, মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধিতেও তারা কাজ করছেন। এরই মাঝে বিপুল সংখ্যক লিফলেট বিতরণ করেছেন তার। মাইকের মাধ্যমে বিভিন্ন ঘোষণা দিয়ে চালকদের নিয়ম মেনে চলার পরামর্শ যেমন দেয়া হচ্ছে তেমনি পথচারিদের চলাচলেও সচেতন থাকার ঘোষণা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে রাজশাহী জেলার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক খান জানান, গত এক সপ্তাহে রাজশাহী যানবাহন আইনে ৬শ’৫৩টি মামলা হয়েছে। ৩শ’২০টি যানবাহন বৈধ কাগজপত্র না থাকার কারণে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ২লাখ ৬৩হাজার ৫শ’টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, জেলা ট্রাফিক পুলিশ সব সময় সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। বাকি তিনদিন অন্যান্য দিনের মতই অভিযান পরিচালনা করবে। এছাড়াও জেলা ট্রাফিক বিভাগ আরো তিনদিন কর্মসূচি পালন করবে। বিশেষ করে সচেতনতামুলক সভা, লিফলেট বিতরণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

অপরদিকে শুধু ট্রাফিক বিভাগই নয়, সচেতনতার লক্ষে মাঠে কাজ করছেন রাজনৈতিক ব্যক্তিরাও। শনিবার মোটরসাইকেল চালকদের মাঝে হেলমেট বিতরণ করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। চলমান ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে ‘নিরাপদ সড়ক চাই’আন্দোলনে সাড়া দিয়ে ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ নেন ডাবলু সরকার। ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি মোটরবাইক আরোহীদের মাঝে বিনামূল্যে হেলমেট বিতরণ করেন।

Leave a Response