Tuesday, October 27, 2020
টপ নিউজরাজনীতি

যতই হুমকি আসুক বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকবে: মিনু

223views

যতই হুমকি আসুক বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকবে: মিনু

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি ২০দলীয় জোটের মেয়র প্রার্থী বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপি’র সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে ১৬নং ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেন। নেতাকর্মীরা অত্র ওয়ার্ডের বিভিন্ন গলি ও বউ বাজারসহ বাড়িতে বাড়িতে যান এবং ধানের শীষের জন্য দোয়া ও ভোট প্রার্থনা করেন। এসময়ে অত্র এলাকায় উৎসবে পরিণত হয়। সমর্থকরা বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে ধানের শীষের পক্ষে স্লোগান দিতে থাকে।এলাকার প্রতিটি জনগণ বর্তমান সরকারের নির্যাতন, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি, বিচার বহির্ভূত হত্যা, খুন, গুম এবং বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা সাজা প্রদানের প্রতিবাদে ধানের শীষে ভোট প্রদান করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন। সেইসাথে এই হায়নারুপি সরকারের হাত হতে দেশ রক্ষা এবং গণতন্ত্র পুণরুদ্ধারে ধানের শীষের কোন বিকল্প নাই বলে তারা জানান। তারা আরো বলেন, যত রকমের বাধা আসুক না কেন সকল বাধা অতিক্রম করে তারা ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং ধানে শীষে ভোট প্রদান কওে মোহাম্মদ মোসাদ্দেক বুলবুলকে বিজয়ী করবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

গণসংযোগকালে মিনু বলেন, বিভিন্ন ওয়ার্ডে বিএনপি মেয়র প্রার্থীর পোস্টার, ব্যানার, ও ফেস্টুন সরকার দলীয় প্রার্থীর সন্ত্রাসীরা এবং অতি উৎসাহী পুলিশ সদস্যরা এখনো টাঙ্গাতে বাধা প্রদান করছে, আবার ছিড়ে ফেলে দিচ্ছে। এছাড়াও ১৬নং ওয়ার্ডে বুলবুলের ফেস্টুন ছিড়ে ডাস্টবিনে ফেলে রেখেছে। ওয়ার্ডে যেয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা ভোটারদের ধানের শীষে ভোট দিতে নিষেধ করছে। এমনকি ভোট কেন্দ্রে না যাওয়া জন্য ভয় দেখাচ্ছে। সেইসাথে ভোট কেন্দ্রে গেলেও নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করা শুরু করেছে। তিনি আরো বলেন, রাজশাহী শান্তির শহর। কিন্তু এই সরকারী দলীয় প্রার্থী ও তাদের দোসরদের জন্য রাজশাহীর পরিবেশ ইতোমধ্যে গরম হতে শুরু করেছে। বিএনপি কখনো সন্ত্রাসী কার্যক্রম করেনা। কারো পোস্টার ছিড়ে না, কারো জমি দখল করেনা, টেন্ডার বাজি করেনা, কমিশন খায়না।

এগুলো সরকার দলের লোকজনের কাজ। তারা এই সকল কাজ করে টাকার পাহাড় গড়েছে। ইতোমধ্যে সরকার দলীয় প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন তার পরিচয় দিয়েছে। তিনি নির্বাচনী হলফ নামা অতিক্রম করে অন্য খরচ বাদেই শুধুমাত্র কোটি কোটি টাকার পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সারা সিটিতে ভরে দিয়েছেন। মেয়র কিংবা কাউন্সিলর প্রার্তীদের কোন ওয়ার্ডে এগুলো টানানোর কোন জায়গা নাই। পুলিশ বাহিনী আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সরাসরি সহযোগিতা করছে। বিএনপি নেতা কর্মীদের গ্রেফতার করছে। যতই গ্রেফতার, মামলা ও হুমকি আসুক না কেন বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকবে এবং জীবন উৎসর্গ করে হলেও ২০দলীয় জোটের প্রার্থীকে বিজয়ী করবেন বলে জানান তিনি। এজন্য সেখানকার বিএনপি, অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বলেন, এই নির্বাচনে কোন ভাবেই আওয়ামী লীগকে ভোট কেন্দ্র দখল বা জাল ভোট প্রদান করতে দেওয়া হবেনা। প্রতিটি কেন্দ্র কঠোরভাবে পাহাড়া দেওয়া হবে এবং ভোট গননা শেষ না হওয়া পর্যন্ত তারা কেন্দ্র পাহাড়া দেবেন। সেইসাথে পোলিং এজন্টেরা ভোট গননা করে ঘোষনা দেওয়া পর্যন্ত যেকোন মূল্যে বুধে অবস্থান করবেন বলে জানান। সেইসাথে ধানের শীষের বিজয়ের মধ্যে দিয়ে আগামীতে রাজশাহী থেকে বেগম জিয়ার মুক্তি ও হাসিনা সরকারের পতনের আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে উল্লেখ করেন তারা।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের অন্যতম উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, শাহ্ মখ্দুম থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, সহ-সভাপতি খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক বাবু, ১৬নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি আকরাম, সাংগঠনিক সম্পাদক লালন, ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদ। এছাড়াও মহানগর যুবদলের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবেদুর রেজা রিপন, ১৬নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি কাবলু, সাধারণ সম্পাদক শামীম, যুবদল নেতা রতন, রনি, মহানগর ছাত্রদলে সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, শাহ্ মখ্দুম থানা ছাত্রদলের সভাপতি কামরুজ্জামান মিলন, ১৬নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক কাজিম ও সদস্য পলাশ সহ অত্র ওয়ার্ডের মহিলা দলের নেতৃবৃন্দ, বিএনপি , অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এবং শত শত সমর্থক উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিএনপি নেতৃবৃন্দ ও কর্মীরা ২নং ওয়ার্ডে বিকেলে গণসংযোগ করেন এবং ধানের শীষের জন্য দোয়া ভোট প্রার্থনা করেন।

Leave a Response