Monday, October 26, 2020
টপ নিউজরাজনীতি

মিথ্যাচার ও অপপ্রচার করা বিএনপির অভ্যাস : লিটন

273views

মিথ্যাচার ও অপপ্রচার করা বিএনপির অভ্যাস : লিটন

মিথ্যাচার ও অপপ্রচার করা বিএনপির অভ্যাস-লিটননিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগ মনোনীত, মহাজোট সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বিএনপি যে অভিযোগগুলো করেছে, তা নিয়ে আমরা চিন্তিত নই। কারণ মিথ্যাচার-অপপ্রচার করা বিএনপির অভ্যাস। তারা শুরু থেকেই মিথ্যাচার করে আসছে।’ সোমবার নগরীতে গণসংযোগের সময় সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় খায়রুজ্জামান লিটন আরো বলেন, আমরা যে অভিযোগগুলো দিচ্ছি, সেগুলো একদম সত্য। আমরা এখনো আশা করি তাদের (বিএনপির) সুবুদ্ধির উদয় হবে। নির্বাচনের পরিবেশ বজায় রেখে নির্বাচন করবে। জনগণ তাদের মতামত দিবে। সেই মতামত যেটাই হোক না কেন তাদের মেনে নিতে হবে। আমরাও জনগণের মতমত মেনে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। আমরা নির্বাচনের পরিবশে সুষ্ঠ রাখবো। তারা (বিএনপি) কী করবে জানি না। কারণ তাদের সঙ্গে তো জামায়াত-শিবির আছে। সোমবার পৌনে ১১টার দিকে নগরীর বনপুকুর এলাকা থেকে দিনের গণসংযোগ শুরু করেন লিটন। এরপর কাদিরগঞ্জ, কাদিগরঞ্জ গ্রেটার রোড এলাকা, দড়িখরবনা ও নিউ মার্কেট এলাকায় দুপুর পর্যন্ত গণসংযোগ করেন তিনি।

বনপুকুর এলাকায় গণসংযোগের শুরুতে সমবেত জনতার উদ্দেশে লিটন বলেন, সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মানুষের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্বীপনার সৃষ্টি হয়েছে। আশা করছি নির্বাচনের শেষ দিন পর্যন্ত এমন পরিবেশ বজায় থাকবে। বিএনপির সদ্য বিদায়ী মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের সমালোচনা করে লিটন বলেন, বিএনপির মেয়রের কারণে রাজশাহী অনেক পিছিয়ে গেল। গত ৫ বছরের কোনো উন্নয়নি হয়নি। যারা কাজ করতে পারেননি, তাদের নতুন করে দেখার সুযোগ নাই।

লিটন বলেন, ২০১২ সালে প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি করে রাজশাহীতে গ্যাস এনেছি। অনেক বাসাবাড়িতে গ্যাস সংযোগ দেয়া হয়েছে। আগামীতে মেয়র নির্বাচন হলে মা- বোনদের রান্নার সুবিধার জন্যে ঘরে ঘরে গ্যাস সংযোগ দেয়া হবে। গ্যাস থেকে বিদ্যুৎ তৈরি করে তা দিয়ে শিল্পকারখানা চালানো হবে। প্রায় একশ শিল্পকারখানা তৈরি করে এক লাখ ছেলে-মেয়ের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে চাই। পিছিয়ে পড়া রাজশাহীতে উন্নত ও সমৃদ্ধ নগরীর হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। আমাকে কাজ করার সুযোগ দিন। স্বাধীনতা ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিন।

এদিকে সোমবার বিকেলে নগরীর শালবাগান মোড় থেকে গণসংযোগ শুরু করেন লিটন। এরপর ছয়ঘাটির মোড়, সপুরা, ওয়াবদার মোড়, রেলগেট ও দড়িখড়বনা এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি। এ সময় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ি বাড়ি ও বিভিন্ন দোকানে গিয়ে স্বাধীনতা ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট চান তিনি। গণসংযোগের সময় শালবাগান মোড়ে পথসভায় লিটন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি করে রাজশাহীতে গ্যাস এনেছি। ইতোমধ্যে অনেক বাড়িতে গ্যাস সংযোগ দেয়া হয়েছে। এখনো অনেকে বাড়িতে গ্যাস সংযোগ নেওয়ার জন্যে আবেদন করেছেন। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে তিন মাসের মধ্যে ঘরে ঘরে গ্যাস সংযোগ দেয়া হবে। পরে নগরীর দড়িখড়বনা রেলগেট এলাকায় গণসংযোগ করেন লিটন।

বিকেলে বিসিক শিল্প এলাকায় আধুনিক সিল্ক মিলস্ এ এক মতবিনিময় সভায় অংশ নেন এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বাংলাদেশ রেশম শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে সমিতির সহসভাপতি নিলুফা ইয়াসমিন বক্তব্য দেন। বক্তব্যে তিনি নগরীতে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার ও অর্থনীতিতে গতি সঞ্চারের জন্যে শিল্পায়ন গড়ে তোলার আহ্বান জানান। মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে লিটন বলেন, রাজশাহী অনেক পুরাতন সিটি কর্পোরেশন হলেও দীর্ঘদিনেও এর আয়োতন বাড়েনি। নগরীতে শিল্পায়ন হয়নি, তাই আয়তনও বাড়েনি। কারণ গত মেয়াদে যিনি মেয়র ছিলেন, রাজশাহীর উন্নয়নে তার কোনো পরিকল্পনা ছিল না। সভায় খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ২০০৮-২০১৩ সাল পর্যন্ত আমি মেয়র ছিলাম। রাজশাহীর উন্নয়নে অনেক প্রকল্প হাতে নিয়েছিলাম। কিন্তু ২০১৩ সালে মানুষ আমাকে নির্বাচিত করেনি। ফলে আমার প্রকল্পগুলো আলোর মুখ দেখেনি। ২০১৩ সালে মেয়র নির্বাচিত হলে এতোদিনে বিসিক এলাকার চেহারাই পাল্টে যেত। সুযোগ পেলে আগামী ৫ বছরে নগরীতে একশ শিল্পকারখানা, গার্মেন্টস্ গড়ে তুলতে চাই। যেখানে এক লাখ ছেলে-মেয়ের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে। ৫ থেকে ১০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প এনে উন্নয়ন করা করতে চাই।

Leave a Response