Wednesday, October 21, 2020
টপ নিউজরাজনীতি

ভীত হয়ে বিএনপি নেতা কর্মীদের গণগ্রেফতার: বুলবুল

221views

ভীত হয়ে বিএনপি নেতা কর্মীদের গণগ্রেফতার: বুলবুল

ভীত হয়ে বিএনপি নেতা কর্মীদের গণগ্রেফতার: বুলবুলনিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী সিটি নির্বাচনে বিএনপি’র জোয়ার বইছে। এই গণজোয়ার দেখে সরকার দলীয় প্রার্থীর ঘুম হারাম হয়ে গেছে। তাই এখন আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে। দীর্ঘদিনের বসতি নদীর ধার এলাকা উচ্ছেদ করে সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থী পার্ক তৈরী করবেন। একেই বলে জনদরদী। বসত ভিটা থেকে মানুষকে উচ্ছেদ করে সরকার দলীয় প্রার্থীর পার্ক তৈরী করার স্বপ্ন কোনদিন পুরন হতে দেয়া হবে না। জীবন দিয়ে হলেও নদীর ধার এলাকার বসতী রক্ষা করা হবে বলে জানান বিএনপি চেয়ারপার্সনের অন্যতম উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু। তিনি সোমবার সকালে নগরীর ২৪নং ওয়ার্ডে ধানের শীষের গণসংযোগের সময় এ কথা বলেন।

গণসংযোগকালে মেয়র প্রার্থী বুলবুল বলেন, বিএনপি হচ্ছে বাংলাদেশ এবং রাজশাহী নগরীর একমাত্র উন্নয়নের রূপকার। এই উন্নয়নকে বাধা গ্রস্থ করতে এবং নগরীর মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্যপুর্ন বসবাস আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এবং তাদের অন্যান্য নেতাকর্মীরা হুমকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে। সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থী ধ্বংসের রাজনীতিতে মেতে উঠেছে। তারা নির্বাচনের নিশ্চিত পরাজয় এবং বিএনপি ও ২০দলীয় জোটের গণজোয়ার দেখে ভীত হয়ে বিএনপি নেতা কর্মীদের গণগ্রেফতার করছে। তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচটি ইমাম নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘন করে রাজশাহীতে বসে নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু রাজশাহীবাসী জানেন রাজশাহীর উন্নয়ন করার জন্য বিএনপি’র কোন বিকল্প নেই। তাই গণ-গ্রেফতার ও জোর করে কোন লাভ নেই। ভোটের দিন প্রতিটি কেন্দ্র বিএনপি’র নেতাকর্মী ও সমর্থকরা পাহাড়া দিয়ে রাখবে। কোথাও কোন প্রকার অসংগতি ও জোর করে সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে ভোট নিতে গেলে পাল্টা জবাব দেয়া হবে বলে তিনি হুঁশিয়ারী দেন।

তিনি বলেন সিটি কর্পোরেশনের বিজ্ঞাপনী স্থানগুলোতেও লিটনের ফেস্টুন টানানো রয়েছে। এতে করে সিটি কর্পোরেশন রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। কিন্তু এগুলো দেখার কেউ নেই। পুলিশ বিভাগ, প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশন শুধু বিএনপি’র নেতাকর্মীদের দেখতে পায়। বুলবুল আরো বলেন, নির্বাচন কমিশনকে অনেক অভিযোগ দিয়েও কোন লাভ হয়নি। আজ্ঞাবহ এই নির্বাচন কমিশন সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের অন্যতম উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন, তানোর পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান, ১৪নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি আবু তালহা মিলন, সাধারণ সম্পাদক জাকের আলী শান্তি, সংগঠনিক সম্পাদক বরজাহান আলী, জেলা যুবদলের সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন, ২৪নং ওয়ার্ড যুবদল নেতা গৌতম, আলাউদ্দিন প্রমুখ।

Leave a Response