Saturday, October 24, 2020
টপ নিউজরাজনীতি

বৃষ্টিতেও ছুটোছুটি, ঘুম নেই প্রার্থীদের

363views

বৃষ্টিতেও ছুটোছুটি, ঘুম নেই প্রার্থীদের

বৃষ্টিতেও ছুটোছুটি, ঘুম নেই প্রার্থীদেরহাবিব আহমেদ: রাজশাহী সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীদের ব্যস্ততা ততই বেড়ে যাচ্ছে। রাসিক নির্বাচনে আর মাত্র ৫ দিন বাকি রয়েছে। সময় কম থাকায় নির্ঘুম রাত পার করছেন মেয়র, কাউন্সিলর প্রার্থীরা। কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিরামহীনভাবে চলছে প্রার্থীদের গণসংযোগ, পথসভা। মেয়র প্রার্থীদের পাশাপাশি কাউন্সিলর প্রার্থীরাও প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। বিশেষ করে নারী কাউন্সিলর প্রার্থীদের যেনো দম ফেলানোর সময় নেই। দিনভর বৃষ্টির মধ্যেও মেয়র কাউন্সিলর প্রার্থীদের ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে গিয়ে ভোট চাইতে দেখা যায়। সোমবার বৃষ্টি উপেক্ষা করে মেয়র, কাউন্সিলর প্রার্থীরা প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করেছেন। বৃষ্টি যেনো কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারছে না মেয়র কাউন্সিলর প্রার্থীদের। একই সাথে ভোটারদের মাঝেও শুরু হয়েছে প্রার্থী বাছাই। কেমন প্রার্থীকে ভোট দিবেন তা যাচাই বাছাই শুরু হয়েছে। একই সাথে ভোটাররা বিগত দিনের যারা মেয়র বা কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন তাদের ৫বছরের উন্নয়নের হালখাতাও শুরু করেছেন।

সোমবার দিনভর ছিল শ্রাবনের বারিধারা। কখনো মুসলধারে,কখনো ঝিরিঝিরি, আবার কখনো ভারী বৃষ্টি হয়েছে রাজশাহীতে। তারপরও থেমে নেই প্রার্থীদের গণসংযোগ। কাক ভেজা হয়ে প্রার্থীদের গণসংযোগ করতে দেখা যায়। মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা বৃষ্টির মধ্যে দিনভর প্রচারণা চালিয়েছেন। একই সাথে বৃষ্টির মধ্যেই মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের প্রচার মিছিল করতে দেখা যায়। থেমে নেই মাইকের প্রচার প্রচারণাও। প্রার্থীদের সকাল থেকে বৃষ্টিতে ভিজে ভোটারদের দারস্থ হতে দেখা যায়। বৃষ্টির মধ্যে রীতিমত সিডিউল করে মেয়র প্রার্থীরা ছুটছেন এক ওয়ার্ড থেকে আরেক ওয়ার্ডে। সাথে কাউন্সিলর প্রার্থীরাও ওয়ার্ডের মহল্লায় মহল্লায় ঘুরছেন ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে। বিশেষ করে এবার মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা রাসিক নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন। আর সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দিনরাত সমান তালে কাজ করছেন তারা। পুরাতনদের পাশাপাশি নতুন কাউন্সিলর প্রার্থীরাও আদাজল খেয়ে নির্বাচনী মাঠে নির্ঘুম রাত পার করছেন।

এদিকে এবার রাসিক নির্বাচন শ্রাবন মাস হওয়ায় প্রার্থীরা অনেকটাই পোষ্টার বিড়ম্বনায় পড়েছেন। নির্বাচনের শুরুর দিকে তেমন বৃষ্টি না হলেও নির্বাচনের শেষের দিকে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। গত দুই দিন থেকে রাজশাহীতে শুরু হয়েছে শ্রাবনের বৃষ্টি। আর এই বৃষ্টিতে নষ্ট হচ্ছে প্রার্থীদের পোষ্টার। ইতিমধ্যে অনেক প্রার্থীর পোষ্টার বৃষ্টিতে ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে। তবে এবার প্রার্থীরা পোষ্টারের ব্যাপারে সাশ্রয়ী হওয়ায় তাদের ক্ষতিটা অনেক কম হচ্ছে। কারণ এবার বেশিরভাগ মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা ডিজিটাল পোষ্টার তৈরি করেছেন। এবার প্রার্থীরা তাদের পোষ্টার পলিথিন ব্যবহার করে রশি দিয়ে টাঙ্গিয়েছেন। এতে পলিথিন ও ডিজিটালভাবে তৈরি করা প্রার্থীদের পোষ্টার বৃষ্টি হলেও নষ্ট হচ্ছে না। কিছু কিছু প্রার্থীর পোষ্টার সকালে টাঙ্গানো হলে বিকেলেই ভিজে নষ্ট হচ্ছে। সোমবার সন্ধ্যার পর নগরীর বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায় প্রার্থীদের পলিথিন মোড়ানো পোষ্টারও বৃষ্টিতে ভিজে নষ্ট হয়ে ঝুলে আছে। কিছু কিছু প্রার্থীর শুধু দড়ি ঝুলছে। তার সাথে রয়েছে পলিথিন। সেখানো কোনো পোষ্টার নেই। অনেকেই ধারণা করছে রাতের মধ্যে প্রার্থীদের যতটুকু পোষ্টার দেখা যাচ্ছে সকালে আর দেখা যাবে না। এমনকি ডিজিটাল পোষ্টার ব্যানারো বৃষ্টির পানিতে নষ্ট হতে দেখা যাচ্ছে। এতে নতুন পোষ্টার তৈরি ও তা টাঙ্গাতে বাড়তি খরচ গুনতে হচ্ছে প্রার্থীদের।

এবার রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ৫জন প্রার্থী প্রতিদ্বদ্বিতা করছেন। এরমধ্যে দু’জন বড় দু’দলের প্রার্থী ও ৩জন সতন্ত্র মেয়র প্রার্থী। সাধারণ ও সংরক্ষিত আসনে ৩০টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে রয়েছেন ২২১জন। তবে এবার ভোটাররা কাউন্সিলর প্রার্থী নিয়ে তেমন মাথা ঘামাচ্ছেন না। ভোটারদের যত মাথা ব্যথা মেয়র প্রার্থী নিয়ে। তাই ভোটাররা এবার মেয়র প্রার্থী যাচাই বাছাইয়ে বেশি মনোযোগী হচ্ছেন।

Leave a Response