Thursday, October 22, 2020
রাজশাহী

বাঘায় ধানের জমিতে পার্চিং উৎসব

245views

বাঘায় ধানের জমিতে পার্চিং উৎসব

বাঘায় ধানের জমিতে পার্চিং উৎসববাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘায় ধানের জমিতে পার্চিং উৎসব পালন করা হয়েছে। উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের হাবাসপুর ব্লকের বিনোদপুর-পারসাওয়া মাঠে ধানের জমিতে উপজেলা কৃষি অফিস এ উৎসব পালন করেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সাবিনা বেগমের সার্বিক তত্বাবধায়নে পার্চিং উৎসবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগীয় অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা নাজনিন আক্তার, উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা হাসমত আলী, ইউনিয়ন সদস্য আবদুল হাকিম, কৃষক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

গতকাল বুধবার দুপুরে কৃষকের উদ্দেশ্যে কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগীয় অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ধানের জমিতে গাছের ডাল ব্যবহার করলে বিভিন্ন প্রজাতির পাখির আগমন ঘটে। অতঃপর পাখিরা ধানে আক্রমনকারী ক্ষতিকর পোকা খেয়ে ফসল রক্ষা করে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সাবিনা বেগম বলেন, পরিবেশের সৌন্দর্য্যরে পাশাপাশি ধান উৎপাদন কয়েগুন বেড়ে যায়। ধানের জমিতে পাচিং পদ্ধতির মাধ্যমে শালিক ও ফিঙে পাখি বসে ধানের ক্ষতিকর পোকাকে ধ্বংস করে। পোকা ধরে খাওয়ার জন্য পাখি বসার জন্য জায়গার ব্যবস্থা করাই মুল উদ্দেশ্য। ফলে কীটনাশকের ব্যবহার কমে যায়। ফসলের উৎপাদন খরচ কমে। বালাইনাশকের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে পরিবেশ দূষণ মুক্ত রাখা যায়। পোকার বংশ বিস্তার কমানো যায়। সহজে পোকার বসতি নষ্ট করা হয়। এছাড়া পাখির বিষ্টা জমিতে জৈব সার হিসেবে উর্ববরতা শক্তি বৃদ্ধি করে।

Leave a Response