Tuesday, October 27, 2020
রাজশাহী

বাগমারায় বিদ্যুত সংযোগ নিতে একটি চক্রের বাধা, চাঁদা দাবির অভিযোগ

257views

বাগমারায় বিদ্যুত সংযোগ নিতে একটি চক্রের বাধা, চাঁদা দাবির অভিযোগ

বাগমারা প্রতিনিধি: উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভার চাঁনপাড়া মহল্লার অটো চালক আব্দুস সামাদের বাড়িতে পল্লী বিদ্যুতের লাইন নিতে চাঁদা দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অটো চালক আব্দুস সামাদ নাটোর পল্লী বিদ্যুত সমিতি ১ এর বাগমারা জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার চাঁনপাড়া মহল্লার আইতুল্লাহ খাঁ এর পুত্র আব্দুস সামাদ তার বসত বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগের জন্য পল্লী বিদ্যুতের বাগমারা জোনাল অফিসে আবেদন করলে পল্লী বিদ্যুত কর্তৃপক্ষ তার নামে মিটার ইস্যু করে ওয়ারিং সহ প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিতে বলে। আব্দুস সামাদ সকল প্রস্তুতি শেষ করে গত মাসে পল্লী বিদ্যুত কর্তৃপক্ষের নিকট সংযোগ দেয়ার অনুরোধ জানালে পল্লী বিদ্যুত অফিস থেকে লাইন সংযোগের জন্য আব্দুস সামাদের বাড়িতে দুই দফা লাইনম্যান পাঠানো হয়। কিন্তু সেখানে সংযোগ দিতে বাঁধা প্রদান করে এই গ্রামের লুৎফর রহমানের পুত্র মিলন হোসেন ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা। তারা ওই সংযোগ বাবদ আব্দুস সামাদের কাছে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে বসে। চাঁদাবাজরা আব্দুস সামাদের কাছে এই টাকা দাবী করে বলে, এই গ্রামে বিদ্যুত নিতে অনেক জায়গায় চাঁদা ও ঘুষ প্রদান করতে হয়েছে। তাই এখন ওই টাকা সবার ওপর ভাগ করে আদায় করা হচ্ছে। এছাড়া কিছু টাকা স্থানীয় মসজিদের উন্নয়নের জন্যও ব্যয় করা হবে।

সে সময় আব্দুস সামাদ ওই টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে চাঁদাবাজরা লাইন ম্যানকে সংযোগ না দিতে হুমকি প্রদান করে সেখান থেকে ফেরত পাঠায়। বিষয়টি আব্দুস সামাদ পল্লী বিদ্যুত কর্তৃপক্ষকে লিখিত ভাবে জানালে কর্তৃপক্ষ ল্ইান স্থাপনে পুলিশী সহায়তার জন্য বাগমারা থানাকে অবহিত করে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলেও ওই সময় লাইনম্যানকে না পাওয়ায় সংযোগ দেয়া সম্ভব হয়নি। আব্দুস সামাদ অভিযোগ করে বলেন, সহায়তার জন্য পুলিশ এসেছে জানিয়ে পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএমকে লাইনম্যান পাঠানোর অনুরোধ জানালেও ডিজিএম অনুরোধ রাখেননি। ফলে লাইনম্যান না আসায় বিদ্যুত সংযোগ সম্ভব হয়নি।

পল্লী বিদ্যুত বাগমারা জোনাল অফিসের ডিজিএম রেজাউল করিম বলেন, এভাবে চাঁদা নেয়ার কোন নিয়ম নেই। এটা বেআইনী। পুলিশকে সহায়তার জন্য আমরাই বলেছি এবং দুইদফা লাইনম্যানকে পাঠানো হয়েছে। তারপরও সংযোগ না হওয়ার কারণ তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Response