Thursday, October 22, 2020
টপ নিউজসারাদেশ

পদ্মায় প্রতিদিন পানি বাড়ছে

403views

পদ্মায় প্রতিদিন পানি বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাবছরের বেশিরভাগ সময় শুষ্ক থাকলেও এখন থৈ থৈ করছে পদ্মার পানি। উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানি বিপদ সীমা ছুঁইছুঁই করছে। ঢলের পানির কারণে প্রতিদিন পদ্মা নদী বাড়ছে পানি। এতে পানি বন্দি হয়ে পড়ছে পদ্মার পাড়ের জনবসতি।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী এনামুল হক জানান, প্রতিদিনই পদ্মার পানি চার-পাঁচ সেন্টিমিটার করে বাড়ছে। বুধবার রাতে ১৭ দশমিক ১৮মিটার বেড়েছে। এর আগে মঙ্গলবার ১৭ দশমিক ১৬ মিটার। শনিবার নগরীর বড়কুঠি পয়েন্টে পদ্মার পানির উচ্চতা ছিল ১৭ দশমিক ৪ মিটার। গত শুক্রবার ভোরে ছিল ১৬ দশমিক ৯৬ মিটার। সন্ধ্যা ৬টায় ছিল ১৭ মিটার। রবিবার সকালে ছিল ১৭ দশকি ৮ মিটার এবং সোমবার সেটি গিয়ে দাঁড়ায় ১৭ দশমিক ১৪ মিটারে। অতিরিক্ত মাত্রায় পানি বৃদ্ধির ফলে প্রতিদিন রাজশাহী নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে। ভাঙ্গনের কারণে কিছু কিছু এলাকায় বিলিন হচ্ছে নদী গর্ভে। নগরীর খরবোনা পদ্মা পাড় এলাকায় দেখা যায় ৪০ থেকে ৫০টি বসবাড়ি পানিতে তলিয়ে গেছে।

স্থানীয়রা বলছে, ১৪, ১৫ দিন আগে থেকে পদ্মার পানি বাড়তে শুরু করে। যার কারণে রাতারাতি এই এলাকার বেশ কিছু ঢ়রবাড়ি প্লাবিত হয়েছে। ইতিমধ্যে সামর্থবানরা তাদের বাড়ি অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে গিয়েছে। পানি বাড়ার কারণে আবার কেউ বাড়ি ছেড়ে চলে গেছে। বুধবার দুপুরে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খরবোনা পদ্মা পাড় এলাকার অনেক বাড়ি পদ্মা নদীর পানিতে তোলিয়ে গেছে। এছাড়াও কেউ কেউ ঘরবাড়ি ভেঙ্গে নিয়ে অন্য এলাকায় চলে গেছেন। বন্যা কবলিত এলাকার নয়ন প্রামানিক জানায়, ৪০ থেকে ৫০টা বাড়ি সরিয়ে নিয়েছে স্থানীয়রা।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান বলেন, পদ্মা নদীর ভাঙ্গন থেকে শহর রক্ষা বাঁধের ৫ কিলোমিটার এলাকায় ২৬৮ কোটি ১৭ লাখ টাকার কাজ করা হয়েছে। এর মধ্যে বেশ কিছু এলাকায় প্রকল্পের কাজ শেষ হয়নি। যেসব এলাকায় কাজ শেষ হয়নি সে সব এলাকায় ভাঙ্গন দেখা দিলে জিও ব্যাগ বা ব্লক দিয়ে ভাঙ্গন রোধের চেষ্টা করা হচ্ছে।

Leave a Response