Wednesday, October 21, 2020
উত্তরাঞ্চল

নাচোলে মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীরা সক্রিয়

235views

নাচোলে মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীরা সক্রিয়

নাচোল প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবাগঞ্জের নাচোলে আইন শৃংঙ্খলা বাহিনীর মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকলে জামিনে মুক্তি পেয়ে মাদক সেবী ও বিক্রেতারা আবারও সক্রিয় হয়ে উঠেছে। সূত্রে জানাগেছে, চলতি মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে নাচোলে প্রায় অর্ধশতাধিক মামলার শতাধিক মাদক বিক্রেতা ও সেবীকে আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরন করলে কিছুদিনের মধ্যে মামলায় জামিনে মুক্তি পেয়ে পুনরায় আইন শৃংঙ্খলা বাহির চোখকে ফাঁকি দিয়ে মাদক বিক্রয় ও সেবন করে চলেছে। অনুসন্ধানে জানাগেছে নাচোল উপজেলার পৌর এলাকাসহ ৪টি ইউনিয়নে ৩৬টি এলাকায় মাদকে রমরামা কারবার চলে। ওই সমস্ত এলাকা থেকে বিভিন্ন ব্যাক্তিকে মাদক সেবন ও বিক্রয়ের অভিযোগে আটক করা হয়। আটক ব্যাক্তিদের সহযোগীরা তাদের আদালত থেকে সহযোগীতা করে ছাড়িয়ে পুনরায় ওই কারবারে ফিরে আসে চেষ্ঠা করছে। আইনের ফাঁক ফোকর ও রাজনৈতি দলের নেতাদের ছত্রছায়ায় এ সমস্ত অমকর্ম করে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। দিনের বেলায় তাদেরকে খুব একটা দেখা না গেলে সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলে তাদেরকে বিভিন্ন গোপন আস্তানায় ও স্কুল কলেজের ফাঁকা মাঠে ও অলিতে গলিতে দেখা যায়।

সূত্রে আরো জানা যায়,নাচোল পৌর এলাকার উপজেলা বাজার ও বাজার সংলগ্ন এলাকা, নাচোল মধ্যবাজার, রেলস্টেশন বাজার, বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বহিরাগত মাদক ব্যবসায়ীরা গোপনে মাদকের রমরমা ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন এলাকার আদিবাসী পাড়ায় আদিবাসীরা সামাজিক আচার অনুষ্ঠানের দোহাই দিয়ে দেশীয় চোলাই করা মদের কারবার অব্যাহত রেখেছে। সেই সুযোগে বাঙ্গালী মাদক সেবীরাও দেশীয় চোলাই করা মদ সেবন করছে। এছাড়া নাচোল উপজেলা সীমান্ত এলাকা রাজবাড়ীতে মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীরা মাদকের নিরাপদ রুট হিসাবে ব্যবহার করছে। তিন উপজেলার সীমান্ত এলাকা হওয়ায় মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর ও আইন শৃংঙ্খলা বাহিনী মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হচ্ছে। মাদক বিক্রেতা ও সেবীরা আইন শৃংঙ্খলা বাহিনীর উপস্থিতি টের পেলেই তারা পার্শবতী উপজেলায় নিরাপদ আস্তানায় চলে যায়।

সুত্রে জানা গেছে, গোদাগাড়ি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর, শিবগঞ্জ, ভোলাহাট, গোমস্তাপুর উপজেলা থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা আইন শৃংঙ্খলা বাহিনীর চোখকে ফাঁকি দিয়ে নাচোল উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় গোপনে ইয়াবা, গাঁজা, ফেন্সিডিল, হিরোইনসহ বিভিন্ন মাদক দ্রব্যের গোপনে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। নাচোল উপজেলার আইনশৃংঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় এ বিষয়ে একাধিকবার আলোচনা হলেও তেমন কোন কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছেনা। ফলে ক্রমশই মাদকে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে তরুন ও যুব সমাজ।

এ বিষয়ে নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ চৌধুরী জোবায়ের আহম্মেদ জানান, জামিনে মুক্তি পাওয়া মাদক বিক্রেতা ও সেবীদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে। আর মাদক নিয়ন্ত্রননের জন্য আইনশৃংঙ্খলা বাহিনী তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। তিনি আরো বলেন, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, গ্রামপুলিশ, আনসার ভিডিপি, মসজিদের ইমাম, সংবাদকর্মী, শিক্ষকসহ সচেতনমহলের সার্বিক সহযোগীতা পেলে নাচোলের মাদক নির্মুল করা সম্ভব।

Leave a Response