Wednesday, October 21, 2020
উত্তরাঞ্চল

নওগাঁয় আম মেলা উপলক্ষে সাইকেল র‌্যালী

178views

নওগাঁয় আম মেলা উপলক্ষে সাইকেল র‌্যালী

নওগাঁ প্রতিনিধি: ‘ফলের রাজা আম, আর আমের রাজা পোরশা’ স্লোগানে নওগাঁর পোরশায় তিনদিন ব্যাপী আম মেলা শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে বুধবার সকালে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে উপজেলার নীতপুর থেকে সাইকেল র‌্যালী বের হয়। প্রায় ৮ কিলোমিটার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সারাইগাছীতে আম মেলায় এসে শেষ হয়। পরে সারাইগাছীতে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নওগাঁ-১ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন চন্দ্র মজুমদার।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ মাহমুদের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহফুজ আলম, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল হাই। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহফুজ আলম জানান, আমের ব্যাপক প্রচার ও প্রসারে লক্ষে আম মেলায় দেশী ও বিদেশী বিভিন্ন প্রজাতির আমের প্রদর্শণে ব্যবসায়ী ও আম চাষী ২০টি স্টল অংশ নেয়। তিনদিন ব্যাপী আম মেলা আগামী ২৯ জুন শেষ হবে। র‌্যালীতে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় পাঁচশ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

জেলা ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, জেলার সাপাহার, পোরশা, নিয়ামতপুর উপজেলা এবং পত্নীতলা ও ধামইরহাট উপজেলার আংশিক বরেন্দ্র এলাকা হিসেবে খ্যাত। পানি স্বল্পতার কারণে বছরের বেশির ভাগ সময় জমি অনাবাদি পড়ে থাকত। ফলে সেখানে ধানের আবাদ না হওয়ায় প্রতি বছরই বাড়ছে আম বাগান। লাভ বেশি হওয়ায় অনেক কৃষক এখন ধান ছেড়ে আম চাষে ঝুকেছেন। প্রতি বছর প্রায় ১ হাজার হেক্টর অধিক জমিতে আম বাগান গড়ে উঠছে। এঁটেল মাটি হওয়ার কারণে এ এলাকার আম বেশ সুস্বাদু। সুস্বাদু হওয়ায় আমের রাজা চাঁপাইনবাবগঞ্জকে ছাড়িয়ে গেছে নওগাঁর আম। এ জেলায় উৎপাদিত প্রায় সব আম আধুনিক প্রজাতির। আমের কোনো পরিচিতি না থাকায় ব্যবাসায়ীরা সেগুলোকে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম বলে চালিয়ে দিচ্ছেন। আমের ব্র্যান্ডিং (প্রচার-প্রচারণা)-এর অভাবে অনেকটাই পিছিয়ে আছে নওগাঁ জেলা। নওগাঁর আমকে ব্রান্ডিং হিসেবে পরিচিত করার জন্য এক ব্যক্তিক্রম উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। সরকারি নির্দেশনায় ও প্রশাসনের নজরদারী থাকায় গত ২৫ মে গোপালভোগ আম নামানোর মধ্য দিয়ে বাজারে আম আসতে শুরু করে। এ বছর প্রচুর আমের উৎপাদন হয়েছে। তবে উৎপাদনের তুলনায় দাম তুলনা মূলক কম। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মনোজিত কুমার মল্লিক জানান, গত পাঁচ বছরে জেলায় আম বাগান দ্বিগুণ চাষ হচ্ছে। বর্তমানে জেলায় ১৪ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন উন্নত আম চাষ হচ্ছে। এঁটেল মাটি হওয়ার কারণে এ এলাকার আম বেশ সুস্বাদু। সুস্বাদু হওয়ায় আমের রাজা জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জকে ছাড়িয়ে গেছে নওগাঁর আম।

Leave a Response