Wednesday, October 21, 2020
শিক্ষাঙ্গন

তারেককে জোর করে হাসপাতালের ছাড়পত্র দেয়ার অভিযোগ

228views

তারেককে জোর করে হাসপাতালের ছাড়পত্র দেয়ার অভিযোগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: ছাত্রলীগ নেতাদের হামলায় আহত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী তারেককে সুস্থ হওয়ার আগেই তাকে ছাড়পত্র দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরে রামেক হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। তারেকের পরিবারের অভিযোগ, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে ছাড়পত্র দেয়। পুলিশ সেটি তার পরিবারের কাছে দিয়েছে।

এদিকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়ায় তাদের চিকিৎসা নিয়ে হতাশ পরিবার। তারেকের বোন ফাহেমা খাতুন জানান, তার মাথায় সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করায় তার পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। আপাতত প্লাস্টার করে রাখা হয়েছে। তবে অস্ত্রোপচার না করলে তার পা স্বাভাবিক হবে না। বর্তমানে তারেক প্রচুর অসুস্থ। তার সারা শরীরে এখনো ব্যথা রয়েছে। চলাফেরা দূরে থাক তাকে তিন চার জন ধরা ছাড়া নড়াচড়াও করতে পারে না। কিন্তু তা সত্তে¡ই তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসার ব্যয়ভারের বিষয়ে জানান, আমরা তিন ভাই-বোনই লেখাপড়া করি। পড়ালেখার খরচ ছাড়া পরিবারের পক্ষে অন্য কোন ব্যয় বহন সম্ভব না। তাই তারেকের সহপাঠীরা ব্যয় বহন করছে।’ জানা গেছে, তারেককে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়ার পর নগরীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, তরিকুল ইসলাম তারেক কোটা সংস্কার আন্দোলনের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। তার বাড়ি গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায়। গত সোমবার কোটা আন্দোলনে পুলিশের উপস্থিতিতেই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মারধর করলে তারেক রাস্তায় পড়ে যায়। এসময় তাকে লাঠি, রড, হাতুরি দিয়ে এলোপাথারি মারধর করতে থাকে ছাত্রলীগ নেতারা। মারধরে কোটা আন্দোলনকারী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক মাসুদ মোন্নাফসহ অন্তত ১১ জন আহত হয়।

Leave a Response