Wednesday, October 21, 2020
শিক্ষাঙ্গন

ঢাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় রাবিতে প্রতিবাদ

236views

ঢাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় রাবিতে প্রতিবাদ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ছাত্রলীগের হামলা ও শিক্ষক লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সোমবার বেলা ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থীদের ব্যানারে রবীন্দ্র ভবনের সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী হোসাইন মিঠুর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ছাত্রলীগের চরিত্র কি সেটা আমরা আমাদের পরিবার থেকে দেখে এসেছি। আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক তাহমিদুল হকের ওপর লাঞ্ছনাকারী যে ছাত্রলীগকে দেখেছি, সেই ছাত্রলীগের সাথে ঐতিহ্যবাহী ছাত্রলীগের কোন মিল নেই। ক্ষমতাসীনদের দেখা উচিত এই ছাত্রলীগের ভিত্তিটা কোথায়। শিক্ষকদের ওপর বর্বরোচিত, নির্লজ্জ এবং বেহায়ার মত যারা হাত তুলতে পারে তাদের প্রকৃত চেহারা চরিত্র বের করে আনা উচিত।

তারা আরো বলেন, কেন তারা সরকারের ঘোষণা করার পরেও সাহস পায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের হামলা করার। আমরা জানি শহীদ মিনার একটি পবিত্র জায়গা শিক্ষা, শান্তি, প্রগতি ছাত্রলীগের এই মূলনীতিতে ছাত্রলীগ বিশ্বাস করে। প্রগতির বার্তা বাহক শহীদ মিনারে দাড়িয়ে শিক্ষকরা মানববন্ধন করে। সেই মানবন্ধনে কিভাবে তারা হামলা করতে পারে? তাহলে বুঝা যায় আমাদের স্বাধীনতার যে চেতনা তা কোথায় হারিয়ে গেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। যারা আমাদের শিক্ষকদের উপর হামলা চালিয়েছে এরা কোন সংগঠন থেকে উঠে আসা ছাত্রলীগ, এদের মুখোশ উন্মোচন করে সরকারের কাছে এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। বর্তমানে বাক স্বাধীনতার হরণ করা হয়েছে দাবি করে বক্তারা বলেন, সংবিধানে যে বাক স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে তা ইতমধ্যেই লুণ্ঠিত করা হয়েছে। কথা বলতে গেলেই তাকে আক্রমণ করা হচ্ছে, হামলা করা হচ্ছে, নির্যাতন করা হচ্ছে। এ কোন সভ্য দেশের সভ্য আইন হতে পারে না। এতে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। আমি কি চিন্তা করছি বা আমার বিবেক কি বলছে এর উপরও আঘাত আসবে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রাশেদ রিন্টু, গোলাম মোস্তফা, চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আহমেদ ফরিদ, মোল্লা মোহাম্মদ সাঈদ ও দ্বিতীয় বর্ষের তানভীর আল আজাদ। এসময় বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ নেন।

Leave a Response