Monday, October 26, 2020
টপ নিউজরাজশাহী

গোদাগাড়ীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারী হওয়ায় বিশেষ মোনাজাত

284views

গোদাগাড়ীতে শত বছরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারী হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী ও ওমর ফারুক চৌধুরীর জন্য বিশেষ মোনাজাত

শামসুজ্জোহা বাবু,গোদাগাড়ী প্রতিনিধি : দেশ রত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার শিক্ষা বিস্তারে যুগোপযোগী ও কার্যকারী পদক্ষেপ এবং রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর একান্ত প্রচেষ্ঠায় শত বছরের গোদাগাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজটি জাতীয়করণ করায়, উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ পরিবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ও আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী এমপির সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা ও বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে শনিবার বেলা ১১ টার দিকে কলেজ প্রাঙ্গনে বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়।

দোয়া মাহফিল শেষে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয় যা পৌর সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। এতে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষক ও ছাত্র ছাত্রী অংশগ্রহন করে। উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজটি সরকারীতে রুপান্তরিত হওয়ায় স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী ও কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাককে কলেজের অধ্যক্ষ, সহকারী প্রধান শিক্ষক, সকল শিক্ষক-কর্মচারী, শিক্ষার্থীসহ এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারাণের পক্ষে থেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

গোদাগাড়ী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মইনুল ইসলাম বলেন, গোদাগাড়ী স্কুল এন্ড কলেজকে জাতীয়করণ করার পিছনে রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর নিরালস প্রচেষ্ঠা রয়েছে।

গোদাগাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শত বছরের পুরনো এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারী হওয়ায় আমার চেয়ে আর বেশী কেও খুশি হতে পারেনা কারণ আমি এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ১৯৬৬ সালে এসএসসি পাশ করি। এবং আমি সভাপতি থেকে নিজ হাতে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিকে জাতীয়করণের জন্য সকল কার্যক্রম সম্পূর্ন করতে পারলাম। তবে সকল শিক্ষক,ছাত্র ও ছাত্রীদের মনে রাখতে হবে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরীর প্রচেষ্টায় জাতীয়করণ হল। সকলকে হাতে হাত রেখে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকারকে শক্তিশালী করতে হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিমুল আকতার বলেন, গোদাগাড়ী কলেজ ও গোদাগাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুটি জাতীয়করণ করায় উপজেলার শিক্ষার মান ও শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাবে। উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে।

Leave a Response