Wednesday, October 21, 2020
উত্তরাঞ্চল

গরমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ কারাগারে ১১ বন্দি অসুস্থ, চিকিৎসা শেষে কারাগারে

291views

গরমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ কারাগারে ১১ বন্দি অসুস্থ, চিকিৎসা শেষে কারাগারে

গরম,চাঁপাইনবাবগঞ্জ,কারাগার,বন্দি,অসুস্থ,চিকিৎসা,শেষ,কারাগারেচাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত বন্দির চাপ ও প্রচন্ড গরমের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কারাগারের ১১ জন বন্দিকে চিকিৎসা শেষে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে পুনরায় কারাগারে নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন এ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে এসে তাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই সময় ৩ জনের অবস্থা আশংকাজনক ছিলো। এছাড়াও কারাগারের অভ্যন্তরে অসুস্থ আরো কয়েকজন বন্দিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কারা কর্তৃপক্ষ। এদিকে অসুস্থ রোগিদের হাসাপাতালে নেয়ার সময় প্রায় ২ ঘন্টা এ্যাম্বুলেন্স ও পুলিশের পিকআপ ভ্যানের সাইরেনের শব্দে শহরের সাধারণ মানুষের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। উৎসুক জনতা ভীড় জমায় চাঁপাইনবাবঞ্জ সদর হাসপাতালের গেটে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কারাগারের ডেপুটি জেলার ফরহাদ সরকার জানান, বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কারাগারে ২ শত ৭৫ জন বন্দিকে রাখা সম্ভব। কিন্তু সেখানে ধারণ ক্ষমতার তিন থেকে চার গুণ বেশি বন্দি রয়েছেন। এদিকে বৃহস্পতিবার দিনভর প্রচন্ড গরমের পর রাতে বন্দিদের নির্ধারিত ওর্য়াডে নেয়া হয়। আর তাই প্রতিটি ওয়ার্ডেই ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অতিরিক্ত বন্দির চাপাচাপি ও প্রচন্ড গরমে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে একের পর এক বন্দি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরমধ্যে কয়েকজন অচেতন হয়ে পড়েন। খবরটি দ্রুত কারা কর্তৃপক্ষের কাছে আসলে প্রাথমিক পর্যায়ে প্রশাসনের নির্দেশে তাদের হাসপাতাল কারাগারে চিকিৎসা দেয়ার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু সেখানে কয়েকজনের অবস্থার অবনতি হলে পরে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে এদের মধ্যে ১১ জনকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। যাদের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা ছিলো আশংকাজনক।

এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. আবুল বাশার জানান, অসুস্থ বন্দিদের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা আশংকাজনক। আর অতিরিক্ত গরমের কারণেই তারা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তবে শুক্রবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন সাইফুল ফেরদৌস মোহাম্মদ খায়রুল আতাতুর্ক রাতের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, অতিরিক্ত গরমে জেলা কারাগারের অসুস্থ বন্দিদের হাসপাতালে নেয়া হলে যথাযথ চিকিৎসা শেষে রাত প্রায় আড়াইটার দিকে বন্দিদের পুনরায় কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে জেলা কারাগারে নেয়া হয়েছে।

Leave a Response