Friday, October 23, 2020
টপ নিউজরাজশাহী

এক রাতেই সব উধাও

162views

এক রাতেই সব উধাও

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে নগরীতে সম্ভাব্য মেয়র কাউন্সিলর প্রার্থীদের সাটানো ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড এক রাতেই উধাও হয়ে গেছে। বুধবার সন্ধ্যা থেকে নগরীর ব্যানার-ফেস্টুন সরিয়ে ফেলার শুরু হয়। রাত পোহাতেই সব পরিস্কার হয়ে যায়। তবে বৃহস্পতিবার বেশিরভাগ পোস্টার ব্যানার সরিয়ে ফেলা হলেও নগরীতে বিভিন্ন জায়গায় প্রার্থীদের পোষ্টার দেখা গেছে। বেশিরভাগ নির্বাচনী ব্যানার-ফেস্টুন রাতারাতি সরিয়ে ফেলা হয়েছে।
রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর প্রার্থীদের ব্যানার-ফেস্টুন সরিয়ে ফেলতে ২০ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। সে অনুযায়ী, শেষ দিন রাত ১২টার আগেই এগুলো সরিয়ে নেন প্রার্থীদের কর্মীরা। বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে এ কাজ শুরু হয়। ব্যানার-ফেস্টুনগুলো সরিয়ে নেওয়ার পর রাস্তার আশপাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় কিছু কিছু পড়ে থাকতে দেখা যায়। সকালে সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীদের সেগুলো কুড়িয়ে গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যেতে দেখা যায়।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আতিয়ার রহমান জানান, ‘সাম্ভাব্য প্রার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই ব্যানার-ফেস্টুনগুলো সরিয়ে নেয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলাম। তারা কথা রাখায় আমরা খুশি। প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা আবার নির্বাচন কমিশনের নির্ধারিত পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন সাঁটাতে পারবেন। আশা করছি, আগামী ৩০ জুলাই আমরা একটি ভালো নির্বাচন করবো।’
এদিকে, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন-২০১৮ তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। সে লক্ষে গত ২০ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত সময় নির্ধারণ করে নগরীতে বিদ্যমান সকল পোস্টার, ব্যানার, দেয়াল লিখন, বিলবোর্ড, গেইট তোরণ, প্যান্ডেল, ও আলোকসজ্জা ইত্যাদি প্রচার সামগ্রী ও নির্বাচনী ক্যাম্প থাকলে তা অপসারণে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে সম্ভাব্য প্রাথীদের নির্দেশনা প্রদান করেছে নির্বাচন কমিশন। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এরই অংশ হিসেবে মহানগরীতে অননুমত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অবৈধ ব্যানার ফেস্টুন অপসারণ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ভ্রাম্যমান টিম নগরীর বিভিন্ন এলাকায় আজ দিনব্যাপী এ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানকালে ইজি, ইউটিসি আল্ট্রাসাউন্ড, আলম ফিজিক্স ভর্তি কোচিং, জেন্টেল পার্ক, ফিজিক্স প্রাইভেট সেন্টার, চাটার্ড কম্পিউটার, আইরিশ নার্সিং ভর্তি কোচিং, স্টার আইএইচটি ম্যাটস ভর্তি কোচিংসহ আরও অননুমত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অবৈধ ব্যানার ফেস্টুন অপসারণ করা হয়েছে। এ সময় রাসিকের রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ মোঃ নূর-ঈ-সাঈদ ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Response