Tuesday, October 20, 2020
টপ নিউজশিক্ষাঙ্গন

উন্নত চিকিৎসার জন্য তরিকুলকে ঢাকায় নেয়া হয়েছে

254views

উন্নত চিকিৎসার জন্য তরিকুলকে ঢাকায় নেয়া হয়েছে

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: কোটা সংস্কার আন্দোলনে ছাত্রলীগের হামলায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম-আহ্বায়ক ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম তারেকের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হয়েছে। তার সহপাঠিদের উদ্যোগে তাকে ঢাকায় নেয়া হয়। রোববার সকাল ১০ টায় রাজশাহী নগরীর রয়েল হাসপাতাল থেকে তাকে নিয়ে ঢাকার পথে রওনা হয়েছেন তারা। তবে কোন হাসপাতালে ভর্তি করা হবে সে বিষয়ে এখনো নিশ্চিতভাবে কোনো কিছু জানা যায়নি। কোটা সংস্কার আন্দোলনের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম-আহ্বায়ক মাহফুজা মোহিনী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মাহফুজা মোহিনী বলেন, ‘রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়ার পর রয়েল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এতে তার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিতে হচ্ছে। তরিকুলকে ঢাকায় নেয়ার কারণ জানতে চাইলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আহমেদ বাবু বলেন, তরিকুলের যে অবস্থা তাতে উন্নত চিকিৎসা না করালে বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে। এজন্য প্রয়োজন আরও কয়েকটি পরীক্ষা। দরকার পড়লে আবারও অস্ত্রপচার করতে হবে তাই ঢাকায় নেয়া হচ্ছে তাকে। এর আগে গত ৫ জুলাই তারেককে সুস্থ হওয়ার আগেই তাকে ছাড়পত্র দেয়ার অভিযোগ উঠে। তারেককে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়ার পর নগরীর রয়েল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উল্লেখ্য, তরিকুল ইসলাম তারেক কোটা সংস্কার আন্দোলনের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। তার বাসা গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায়। গত সোমবার কোটা আন্দোলনে পুলিশের উপস্থিতিতেই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মারধর করলে তারেক রাস্তায় পড়ে যায়। এসময় তাকে লাঠি, রড, হাতুরি দিয়ে এলোপাথারি মারধর করতে থাকে ছাত্রলীগ নেতারা। মারধরে কোটা আন্দোলনকারী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক মাসুদ মোন্নাফসহ অন্তত ১১ জন আহত হয়। এঘটনায় ঘটনার পর আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছিল। ওই সময় হাসপাতালে এক্স-রেসহ বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা গেছে, তরিকুলের ডান পা ভেঙে গেছে। মাথায় প্রচন্ড আঘাত পেয়েছে। নয়টি সেলাই পড়েছে মাথায়। কিন্তু নূন্যতম চিকিৎসাসেবা নেয়ার সুযোগ না দেয়ার এক প্রকার জোর করেই তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ করেন তরিকুলের পরিবার।

Leave a Response